ছাত্রলীগ সন্ত্রাসী সংগঠনে পরিণত হয়েছে

যশোরে আসিক ভিলা নামক একটি ছাত্রাবাসে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের হামলায় ইসলামী ছাত্রশিবিরের স্থানীয় নেতা হাবিবুল্লাহ ও কামরুল হাসান নিহত এবং আল-মামুন গুরুতরভাবে আহত হওয়ার নৃশংস ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানিয়ে জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও সাবেক এমপি ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মোঃ তাহের বলেন, ছাত্রলীগ একটি সন্ত্রাসী সংগঠনে পরিণত হয়েছে।
গতকাল মঙ্গলবার দেয়া বিবৃতিতে তিনি বলেন, ছাত্রলীগ সারা দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই সন্ত্রাস সৃষ্টি করছে। হত্যা, অপহরণ, গুম, চাঁদাবাজি, ভর্তি ও সিট বাণিজ্য, টেন্ডারবাজি, ধর্ষণসহ হেন অপকর্ম নেই যা তারা করছে না। তারা প্রশাসনের নাকের ডগায় বসে সকল ধরনের অপকর্ম করে যাচ্ছে। প্রশাসন তাদের গ্রেফতার করার পরিবর্তে সহযোগিতা করেই যাচ্ছে। তারা খুন-খারাবি করে সারা দেশে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি ঘটাচ্ছে।
তিনি আরো বলেন, গত ২৩ নবেম্বর ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা যশোরের আসিক ভিলা নামক একটি ছাত্রাবাসে দিনে-দুপুরে হামলা করে ইসলামী ছাত্রশিবিরের নেতা এম.এম. কলেজের ছাত্র হাবিবুল্লাহ ও কামরুল হাসানকে পিটিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে ও আল-মামুনকে গুরুতরভাবে আহত করেছে। এ ঘটনা থেকেই বুঝা যাচ্ছে দেশে ছাত্রলীগ কী ভয়ংকর সন্ত্রাস সৃষ্টি করছে।
ইসলামী ছাত্রশিবিরের নেতা হাবিবুল্লাহ ও কামরুল হাসানের হত্যাকারীদের অবিলম্বের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করার জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান।
নিহত হাবিবুল্লাহ ও কামরুল হাসানের শাহাদাত কবুল করার জন্য তিনি আল্লাহর কাছে দোয়া করেন এবং তাদের শোকসন্তপ্ত পরিবার-পরিজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। সেই সাথে তিনি আহত আল-মামুনের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন।