ছাত্রলীগের সন্ত্রাসের প্রতিবাদে রাজধানীতে শিবিরের বিক্ষোভ

ছাত্রলীগের অব্যাহত সন্ত্রাস,খুন,ধর্ষণ এবং আইন হাতে তুলে নিয়ে সাধারণ ছাত্রদের ওপর নির্যাতনের প্রতিবাদে ইসলামী ছাত্রশিবির ঢাকা মহানগরী পশ্চিম শাখার উদ্যোগে আজ বুধবার রাজধানীর মিরপুর-১০ নম্বরে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে । শাখা সভাপতি ডা.মুজাহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে র‌্যালীতে প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় দাওয়াহ্ সম্পাদক মু.মোস্তাফিজুর রহমান । শাখা সেক্রেটারী আব্দুল আলীম, সাংগঠনিক সম্পাদক জুবায়ের হোসাইন রাজন সহ শাখার বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেয়।  মিছিলটি মিরপুর ১০ নম্বর হতে শুরু হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয় ।
প্রধান অতিথি তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের উস্কানিতে দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ গুলোতে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা সন্ত্রাস,খুন,ধর্ষণের পাশাপাশি সাধারণ ছাত্রদের ওপর নির্যাতনের স্টিম রোলার চালাচ্ছে । তারা ক্যাম্পাসগুলো কে সন্ত্রাসীদের অভয়ারণ্য তে পরিণত করেছে । শিক্ষার পরিবেশ বিনষ্ট করার সুদূর প্রসারী লক্ষ নিয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশে বাংলাদেশ কে মেধাবী শূণ্য করার পাঁয়তারা চলছে । বর্তমান সরকারের আমলে ছাত্রলীগের নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ কে কেন্দ্র করে বিভিন্ন বিশ^বিদ্যালয়-কলেজ একাধিক বার বন্ধ হয়েছে ।  নিজ দলীয় কর্মী খুন হতে শুরু করে ধর্ষণ পর্যন্ত এমন অপকর্ম নেই যা তারা করেনি । বারংবার দেশের একাধিক প্রিন্ট-ইলেকট্রনিক মিডিয়াতে ছাত্রলীগের অপকর্ম প্রকাশিত হওয়া সত্ত্বে বর্তমান সরকার তাদের বিরুদ্ধে কোন প্রতিরোধ মূলক ব্যবস্থা নেয়নি । বরং সরকারের আরও মদদ পেয়ে ছাত্রলীগ বিশ^বিদ্যালয় ক্যাম্পাস গুলোতে সাধারণ ছাত্রদের ওপর ভয়াবহ নির্যাতন চালাচ্ছে । তিনি সরকার কে হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন,সরকার যদি এখনই ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী কার্যকলাপ বন্ধে কার্যকরী উদ্যোগ গ্রহণ না করে, তবে এদেশের মুক্তিকামী ছাত্র-জনতার প্রিয় ঠিকানা ইসলামী ছাত্রশিবির সাধারণ ছাত্রদের সাথে কাধেঁ কাধঁ মিলিয়ে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসের দাত ভাঙ্গা জবাব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত আছে ।
শাখা সভাপতি ডা.মুজাহিদুল ইসলাম উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন,ছাত্রলীগের অপকর্মের খবর এদেশের প্রতিটি ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে হবে এবং একই সাথে বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেওয়ার জন্য নেতাকর্মীদের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.