আমরা কাদের কাছে বস্তুনিষ্ঠ খবর এবং সমাজের বাস্তব চিত্র জানার অপেক্ষায় থাকি?

বাংলাদেশের সব চাইতে বড় ভুমিদস্যু হচ্ছেন বসুন্ধারার মালিক আহমেদ আকবর সোবহান এবং যমুনা গ্রুপের মালিক বাবুল।

বসুন্ধারা গ্রুপের মালিকানাধীন প্রিন্ট মিডিয়া হচ্ছে বাংলাদেশ প্রতিদিন, কালের কন্ঠ,ডেইলি সান। তাদের চ্যানেল হচ্ছে NEWS24.

যমুনা গ্রুপের মালিকানাধীন প্রিন্ট মিডিয়া হচ্ছে দৈনিক যুগান্তর।এবং তাদের ইলেকট্রনিক মিডিয়া হচ্ছে যমুনা টেলিভিশন।

এশিয়ান টিভির মূল মালিক এশিয়ান গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের চেয়ারম্যান আলহাজ মো. হারুন-উর রশীদ এবং ওয়ালটন গ্রুপ।তাতে শেয়ার রয়েছে বনানী অগ্নিকান্ডের ঘটনার আলোচিত এফ আর টাওয়ারের মালিক রুপায়ন গ্রুপের চেয়ারম্যান মুকুলের।

বাংলাদেশের সব চাইতে বড় ঋন খেলাপি হচ্ছেন,
-সালমান এফ রহমান।
তার মালিকানাধীন অন লাইন নিউজ পোর্টাল বিডি নিউজ।
সালমান এফ রহমানের মালিকানাধীন প্রিন্ট মিডিয়া হচ্ছে ডেইলি ইন্ডিপেনডেন্ট পত্রিকা।এবং ইলক্ট্রনিক মিডিয়া হচ্ছে ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশন।

এবার আপনি চিন্তা করে দেখুন,আমরা কাদের কাছে বস্তুনিষ্ঠ খবর এবং সমাজের বাস্তব চিত্র জানার অপেক্ষায় থাকি?
বনানীর ঘটনায় বিএনপি নেতা তাসভির’কে গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ।তাসভিরের চেহারা গতকাল পর্যন্ত তার নিজের রাজনৈতিক এলাকা কুড়িগ্রামের বাইরে কেউ চিনতো না।কিন্তু আজ তার চেহারা নায়ক শাকিব খানের চাইতেও বেশী ভাইরাল।
কারন তাসভিরকে আড়াল করে রাখবার জন্য তার কাছে কোন পোষা সাংবাদিক ছিল না।

কোন পত্রিকায় বা চ্যানেলে বনানীর এফ আর টাওয়ারের মালিক রুপায়ন গ্রুপের চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী খান মুকুলের চেহারা দেখেছেন? দেখেন নাই!
এটাই হচ্ছে বাস্তবতা।
বসুন্ধরা,যমুনা,বেক্সিমকো,স্কয়ার,মোহাম্মদী গ্রুপ,হামিম গ্রুপ,রুপায়ন গ্রুপ গুলো হচ্ছে মাফিয়া।আর এসব মাফিয়ার গোলামি করছে দেশের হাজার হাজার সাংবাদিক এবং কলাম লেখক সহ বিখ্যাত সকল টকশো উপস্থাপক।

এসব মাফিয়ারা পাপ করে আর সে পাপ হারপিকের চাইতেও বেশী জীবাণুমুক্ত করে মুছে ফেলে এসব সাংবাদিকরা।

কেউ একজন একবার বলেছিল।
আগে বড়লোকেরা নিজেদের অবৈধ সম্পত্তি,বাড়ির আঙ্গিনা পাহারা দেয়ার জন্য লাঠিয়াল রাখতো, কুকুর পালতো।
দিন চেঞ্জ হইছে।এখনকার বড়লোকেরা তাদের অবৈধ সম্পদ পাহারা দেয়ার জন্য আর কুত্তা পালে না,কুত্তার জায়গায় সাংবাদিক পালে।