আওয়ামীলীগ কি তরুণদের জানাবে ১৫ আগস্টের সত্যি ঘটনা?

কয়েক বিপদগামী সেনা সদস্য বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে,আওয়ামীলীগ শুধু কিছু সেনার দোষ দিয়ে সত্য আড়াল করার চেষ্টা করে। মূলত আওয়ামীলীগের কিছু বিপদগামী নেতাও জড়িত ছিলো। এ সত্য কথাটা আওয়ামীলীগ কখনো মুখ দিয়ে বলতে চায় না। তাদের বক্তব্য অনুযায়ী বঙ্গবন্ধুকে হত্যার যড়যন্ত্র করেছে শুধু সেনাবাহিনীর কয়েক সদস্য। বলা হয়ে থাকে মুজিব নগর সরকার থেকেই বঙ্গবন্ধুকে হত্যার যড়যন্ত্র হয়েছিলো। এর সঙ্গে বিদেশী শক্তিও জড়িত ছিলো। বঙ্গবন্ধু হত্যার সাথে জড়িত কয়েকজন সেনা কর্মকর্তাকে ফাঁসি দিয়ে দৃশ্যমান কয়েকজন অপরাধির শাস্তি দিয়েছে। এ হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত নৈপথ্য শক্তিকে নতুন প্রজন্মের কাছে জানাতে পারবে আওয়ামীলীগ ? অন্যথায় নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধু হত্যার সঠিক ঘটনা জানা থেকে বঞ্চিত করা হবে।
আজ ১৫ আগষ্ট সরকারিভাবে শোক দিবস পালন করা হচ্ছে। সরকার পালন করলেও দিনটা সবার জন্য পালনীয় করতে পারেনি আওয়ামী লীগ। এমনকি মহাজোটের অন্য শরিকরাও দিনটা পালন করছে না। এমনকি বাকশাল পার্টির অন্যতম পার্টনার সিপিবিও দিনটা পালন করছে না।