ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী কার্যকলাপে হুমকির মুখে শিক্ষা ব্যবস্থা

দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগের ‘সন্ত্রাসী কার্যকলাপে’ শিক্ষা ব্যবস্থা হুমকির মুখে পড়েছে বলে দাবি করেছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল।
শনিবার ছাত্রলীগের দুটি পক্ষের সংঘর্ষে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণার পর এর নিন্দা জানিয়ে রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ কথা বলেন ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মামুনুর রশিদ মামুন ও সাধারণ সম্পাদক মো. আকরামুল হাসান।
নেতৃত্বয় বলেন, ‘দেশের অন্যতম বিদ্যাপীঠ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের একের পর এক সন্ত্রাসী কার্যক্রমে শিক্ষার পরিবেশকে ধ্বংসের মুখে ফেলে দিচ্ছে। এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি বারবার কলুষিত করছে ছাত্রলীগ। এ হামলা ছাত্রলীগের হিংস্রতা, বর্বরতা ও বিকৃত মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ।’
তারা বলেন, ‘ছাত্রলীগ দেশের সকল শিক্ষাঙ্গণে শুধু বিরোধী ছাত্রসংগঠনের সঙ্গেই সশস্ত্র সংঘর্ষে লিপ্ত হয় না, নিজেদের মধ্যেও প্রচুর খুনখারাবি করেছে। চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, আধিপত্য নিয়ে তারা বিভিন্ন গ্রুপে বিভক্ত হয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে লিপ্ত হচ্ছে। তাদের সশস্ত্র দুর্বৃত্তপনার সামনে প্রতিনিয়ত আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে নিস্ক্রিয় দেখা যাচ্ছে।’
বিবৃতিতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সৃষ্ট ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত এবং দোষীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানানো হয়।